1. admin@hostpio.com : আরএমজি বিডি নিউজ ডেস্ক :
  2. azmulaziz2021@gmail.com : Azmul Aziz : Azmul Aziz
  3. musa@informationcraft.xyz : musa :
বুধবার, ১২ মে ২০২১, ০৬:৫৭ পূর্বাহ্ন

প্রধানমন্ত্রীকে হত্যার হুমকি

  • সময় মঙ্গলবার, ৯ মার্চ, ২০২১
  • ১০০ বার দেখা হয়েছে

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যা ও সরকার উৎখাতের হুমকির অভিযোগে বিএনপির চার নেতার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহ মামলা করেছে রাজশাহী আওয়ামী লীগ।

মঙ্গলবার (৯ মার্চ) রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের আইনবিষয়ক সম্পাদক মোসাব্বিরুল ইসলাম রাজশাহীর জেলা মেজিষ্ট্রেট বরাবর এ মামলার আবেদন করেন। আবেদনের বিষয়ে কোনো আদেশ দেননি আদালত।

অভিযুক্তরা হলেন- বিএনপি চেয়্যারপারসনের উপদেষ্টা মিজানুর রহমান মিনু, সাংগঠনিক সম্পাদক রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু, নগর সভাপতি মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল ও সাধারণ সম্পাদক শফিকুল হক মিলন।

অভিযোগের পত্রে বলা হয়- গত ২ মার্চ রাজশাহী বিএনপির বিভাগীয় সমাবেশে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সরকারের প্রতি ঘৃণা বিদ্বেষ সৃষ্টি এবং প্রাণ নাশের মাধ্যমে নির্বাচিত সরকার উৎখাতের অসৎ উদ্দেশ্যে বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা মিজানুর রহমান মিনু প্রকাশ্যে হুমকী দিয়েছে। ওই সমাবেশে মিনু বলে- “হাসিনা তুমি রেডি হও- আজ সন্ধ্যার সময়- কালকে সকাল তোমার নাও হতে পারে। স্মরণ করে দিয়ে বলেন, তোমার মনে নাই ৭৫ সাল। ওই ঘোষণার পর থেকেই বিএনপি নেতা কর্মীদের মঝে উগ্রভাব প্রকাশ পায়।

অভিযোগ পত্রে আরও বলা হয়, আসামিরা পরস্পর যোগসাজোম ও পূর্ব পরিকল্পিত ভাবে বিভাগীয় সমাবেশ’র আয়োজন করে। তাদের মূল উদ্দেশ্য ছিল সমাবেশের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যাসহ নির্বাচিত সরকার উত্থাতের প্রকাশ্য ঘোষণা ও হুমকি প্রদর্শন করে রাষ্ট্রদ্রোহীতার অপরাধ করেছে। তাদের বক্তব্য ও কার্যকলাপ বাংলাদেশের নিরাপত্তা এবং সার্বভৌমত্বের প্রতি বিপদ জনক ও হুমকী স্বরূপ অপরাধ করেছে।

মামলার বাদি মুসাব্বিরুল ইসলাম গনমাধ্যমকে বলেন, বিএনপির চার নেতার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহিতার মামলার জন্য জেলা ম্যাজিস্ট্রেট কাছে দরখাস্ত জমা দেয়া হয়েছে। পুলিশ কমিশনারের মাধ্যমে তদন্ত হয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রাণালয়ের অনুমোদন পরে নিয়মিত মামলা হবে।

গত ২ মার্চ বিএনপির বিভাগীয় সমাবেশে মিজানুর রহমান মিনু প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে উদ্দেশে করে বলেন, “আজ রাত, কাল আর সকাল নাও হতে পারে। ৭৫ মনে নাই?’

এছাড়া বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকেও কটাক্ষ করে বক্তব্য দেন বিএনপির ওই নেতা। ফলে পরদিনই বিক্ষোভ-সমাবেশ করে দলটি। সমাবেশ থেকে নগর আওয়ামী লীগের সভাপতি সিটি মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন মিনুকে ৭২ ঘণ্টার আল্টিমেটাম দেওয়া হয়। এ ঘটনার পর রবিবার (৭ মার্চ) এক বিবৃতিতে মিজানুর রহমান মিনু দুঃখ প্রকাশ করেন।

মিনু বিবৃতি পাঠানোর আগে আল্টিমেটামের সময় শেষ হওয়ায় নগর আওয়ামী লীগ তার বিরুদ্ধে মামলার সিদ্ধান্ত নেয়। রবিবার ৭ মার্চের আলোচনা আলোচনা সভায় মিনুর বিরুদ্ধে মামলা করার সিদ্ধান্ত হয়।

মামলার আবেদন।

এদিকে, ২০১৯ সালের ১২ অক্টোবর রাজশাহী মহানগর বিএনপির এক বিক্ষোভ সমাবেশে মিনু প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জির সঙ্গে তুলনা করে কটূক্তিমূলক বক্তব্য দেন। পরে তাকে ক্ষমা চাইতে বলা হলে ফেসবুক লাইভে এসে দুঃখ প্রকাশ করেছিলেন রাজশাহীর সাবেক মেয়র বিএনপি নেতা মিনু।

 

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই শাখার আরো সংবাদ পড়ুন
All rights reserved © RMGBDNEWS24.COM