1. [email protected] : আরএমজি বিডি নিউজ ডেস্ক :
সোমবার, ২০ মে ২০২৪, ১১:৫৪ পূর্বাহ্ন
সর্বশেষ :
ওমর খৈয়াম : সাহিত্যিক, দার্শনিক, জ্যোতির্বিদ আর নিখাদ আল্লাহপ্রেমী যে মানুষটিকে পাশ্চাত্য বানিয়েছে মদারু! আধুনিক বিশ্ব এখন ঝুঁকছে ডিজিটাল ডায়েটিংয়ের দিকে : আপনার করণীয় মানুষ কখন হেরে যায় : ইবনে সিনার পর্যবেক্ষণ সন্তান কখন কথা শুনবে? আসুন জেনে নেই মিরপুর কলেজের এবছরের অর্জন গুলো A town hall meeting of the RMG Sustainability Council (RSC) was held at a BGMEA Complex in Dhaka to exchange views on various issues related to RSC নব নবগঠিত UPVAC-বাংলাদেশ কমান্ড কমিটির দায়িত্বভার গ্রহন উপলক্ষে প্রথম সভা অনুষ্ঠিত UPVAC-বাংলাদেশ কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক এর বিবৃতি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান-বাড়িতে মারধর, চুল টানা, কান মলাসহ শিশুদের শাস্তি বন্ধ নেই কেন আপনি সফট এবং এনার্জি ড্রিংকস খাবেন না

ভারতে রেকর্ড সংখ্যক ৩৬৮৯ জনের মৃত্যু

  • সময় রবিবার, ২ মে, ২০২১
  • ১০১০ বার দেখা হয়েছে

ভারতে গত ২৪ ঘণ্টায় সংক্রমণ কিছুটা কমলেও মৃত্যু হার বেড়েছে। গত কয়েকদিনে ভারতের চিত্রটা প্রায় একই রকম। আক্রান্ত ও মৃত্যু প্রায় প্রতিদিনই বাড়ছে বা সামান্য কিছু কমছে। কিন্তু করোনা পরিস্থিতির ভয়াবহতা কমার কোনো লক্ষণ নেই।একদিন আগেই দেশটিতে প্রথমবারের মতো সংক্রমণ ছিল ৪ লাখের বেশি। একদিনের ব্যবধানে এই সংখ্যা কমেছে। গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্তের সংখ্যা ৩ লাখ ৯২ হাজার। তবে এই সময়ের মধ্যে মারা গেছে ৩ হাজার ৬৮৯ জন। যা একদিন আগের চেয়ে সামান্য বেশি। একদিন আগেই দেশটিতে নতুন আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ৪ লাখ ১ হাজার ৯৯৩ এবং মারা গেছে ৩ হাজার ৫২৩ জন।

এদিকে শনিবার সকালে করোনা পরিস্থিতি নিয়ে জরুরি বৈঠক করার কথা রয়েছে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির। গত মাসে জাতির উদ্দেশে এক ভাষণে মোদি বলেছিলেন, করোনার দ্বিতীয় ঢেউ দেশটিতে ঝড়ের মতো আঘাত করেছে।এখন পর্যন্ত ভারতে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ১ কোটি ৯৫ লাখ ৫৭ হাজার ৪৫৭ জন। অপরদিকে এখন পর্যন্ত করোনা সংক্রমণে মৃত্যু হয়েছে ২ লাখ ১৫ হাজার ৫৪২ জনের।করোনার প্রথম ধাক্কার মতো দ্বিতীয় ঢেউয়েও সবচেয়ে বেশি মানুষ আক্রান্ত হচ্ছে মহারাষ্ট্রে। শনিবারের মতো রোববারওওই রাজ্যে আক্রান্ত হয়েছে ৬৩ হাজারেরও বেশি মানুষ।তবে কর্নাটক এবং কেরালায় রোববার আক্রান্তের সংখ্যা শনিবারের তুলনায় একটু কমেছে। ওই দুই রাজ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্তের সংখ্যা যথাক্রমে ৪০ হাজার ৯৯০ এবং ৩৫ হাজার ৬৩৬।

এদিকে, উত্তরপ্রদেশে গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত হয়েছে ৩০ হাজার ১৮০ জন। দিল্লিতে ২৫ হাজার ২১৯ জন। সংক্রমণে এরপরেই রয়েছে তামিলনাড়ু, অন্ধ্রপ্রদেশ, রাজস্থান, পশ্চিমবঙ্গ, ছত্তীসগড়, হরিয়ানা, বিহার, গুজরাট, মধ্যপ্রদেশ এবং ওড়িশা। এই রাজ্যেগুলোতে দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা ১০ থেকে ২০ হাজারের মধ্যে।ভারতে গত কয়েকদিনে সক্রিয় রোগীর সংখ্যাও লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে। বর্তমানে দেশটিতে মোট সক্রিয় রোগী রয়েছেন ৩৩ লাখ ৪৯ হাজার ৬৪৪ জন। বিপুল পরিমাণ সক্রিয় রোগী দেশের স্বাস্থ্য ব্যবস্থাকে কঠিন চ্যালেঞ্জের মুখে ফেলেছে।

বিভিন্ন রাজ্যের হাসপাতালগুলোতে শয্যা সঙ্কট বেড়ে গেছে। অক্সিজেনের অভাবে মৃত্যুর ঘটনা প্রায় প্রতিদিনই ঘটছে। বিদেশ থেকে অক্সিজেন এনে পরিস্থিতি মোকাবিলার চেষ্টা চালাচ্ছে প্রশাসন।এই পরিস্থিতির মধ্যেও ভ্যাকসিন কার্যক্রম ভালো ভাবেই চলছে। আজ থেকেই ভারতে ১৮ থেকে ৪৪ বছর বয়সীরাও ভ্যাকসিন পাচ্ছেন। গত ২৪ ঘণ্টায় ভারতে ভ্যাকসিন নিয়েছেন ১৮ লাখের বেশি মানুষ। এ নিয়ে দেশটিতে ভ্যাকসিনে ডোজ দেওয়া হলো ১৫ কোটি ৬৮ লাখ।এদিকে, শনিবার সকালে দিল্লির একটি হাসপাতালে অক্সিজেন সংকটে ৮ করোনা রোগীর মৃত্যু হয়েছে। এই আটজনের মধ্যে একজন চিকিৎসকও রয়েছেন বলে জানা গেছে।

 

Thank you for reading this post, don't forget to subscribe!

শেয়ার করুন

এই শাখার আরো সংবাদ পড়ুন
All rights reserved © RMGBDNEWS24.COM
Translate »