1. admin@hostpio.com : আরএমজি বিডি নিউজ ডেস্ক :
  2. azmulaziz2021@gmail.com : Emon : Armanul Islam
  3. musa@informationcraft.xyz : musa :
সোমবার, ২৬ জুলাই ২০২১, ০৪:২২ পূর্বাহ্ন

ইতিহাসে জুলাই ১২ -চিত্র পরিচালক এবং প্রযোজক বিমল রায় এর জন্মদিন

  • সময় সোমবার, ১২ জুলাই, ২০২১
  • ৩৭ বার দেখা হয়েছে

ইতিহাসে জুলাই ১২

আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন বাঙালি চিত্র পরিচালক এবং প্রযোজক বিমল রায় এর জন্মদিন

গ্রেগরীয় বর্ষপঞ্জি অনুসারে আজ বছরের ১৯৩তম (অধিবর্ষে ১৯৪তম) দিন। এক নজরে দেখে নিই ইতিহাসের এই দিনে ঘটে যাওয়া উল্লেখযোগ্য কিছু ঘটনা, বিশিষ্টজনের জন্ম ও মৃত্যুদিনসহ আরও কিছু তথ্যাবলি।

ঘটনাবলি

১৯২০ : কাজী নজরুল ইসলাম ও কমরেড মুজফ্‌ফর আহমদের যুগ্ম সম্পাদনায় নবযুগ পত্রিকা প্রকাশি হয়।
১৯৭২ : বাংলাদেশকে স্বাধীন দেশ হিসেবে স্বীকৃতি দেয় তানজানিয়া।

জন্ম

১৮৪৫ : যোগেন্দ্রনাথ বিদ্যাভূষণ, বাঙালি সংস্কৃত পণ্ডিত, চিন্তাবিদ, সাংবাদিক ও জনপ্রিয় জীবনীগ্রন্থের প্রণেতা।
১৮৫৪ : জর্জ ইস্টম্যান, আমেরিকান উদ্ভাবক ও ইস্টম্যান কোডাক কোম্পানির প্রতিষ্ঠাতা।
১৮৬৩ : আলবেয়ার কালামেত্ত, বিসিজি টিকার উদ্ভাবক ফরাসি জীবাণুবিদ।
১৮৬৯ : শ্যামসুন্দর চক্রবর্তী, স্বাধীনতা সংগ্রামী ও বিশিষ্ট সাংবাদিক।
১৯০৪ : পাবলো নেরুদা, সাহিত্যে নোবেলজয়ী চিলির কবি, কূটনীতিজ্ঞ ও রাজনীতিক।
১৯০৯ : বিমল রায়, আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন চলচ্চিত্র প্রযোজক ও পরিচালক।
১৯১৩ : উইলিস ইউগেন ল্যাম্বে, নোবেলজয়ী মার্কিন পদার্থবিদ।

মৃত্যু

১৯৯৯ : ভারতের বিশিষ্ট বাঙালি জ্যোর্তিবিজ্ঞানী রমাতোষ সরকার
২০১৩ : বাঙালি ভারতীয় বংশোদ্ভূত আমেরিকান প্রকৌশলী, বিশ্ববিখ্যাত অডিও ইকুইপমেন্ট প্রস্তুতকারক সংস্থা বোস কর্পোরেশনের প্রতিষ্ঠাতা অমর গোপাল বসু

বিমল রায়

বিমল রায় ছিলেন একজন আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন বাঙালি চিত্র পরিচালক এবং প্রযোজক। তার মধ্যে সবসময়ই ছিল একটা সমাজ সচেতনতা। তিনি সমাজতান্ত্রিক ভাবনায় উদ্বুদ্ধ ছিলেন। মস্কোয় ১৯৫৯ সালে প্রথম আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের বিমল রায় অন্যতম জুরি ছিলেন। কিছুকাল ফিল্ম গিল্ড অফ ইন্ডিয়ার সহকারী সভাপতি এবং ভারতীয় চলচ্চিত্র প্রযোজক সমিতির সভাপতিও ছিলেন।

জন্মগ্রহণ করেন ১৯০৯ সালের ১২ জুলাই বাংলাদেশের অধুনা ঢাকার সুত্রাপুরের এক জমিদার বাড়িতে। সাত ভাই ছিলেন তারা। ঢাকার জগন্নাথ কলেজে পড়াকালীন বাবা মারা যান। এরপর মা ও ভাইদের নিয়ে বিমল চলে আসেন কলকাতায়।

ছোটবেলা থেকেই ক্যামেরার প্রতি ছিল অসম্ভব ঝোঁক। শুরুটা হয়েছিল নিতিন বোসের হাত ধরে। প্রমথেশ বড়ুয়ার ছায়াছবির প্রচারের জন্যে ছবি তোলার কাজ পান তিনি। মেধা ও চেষ্টা করতে থাকেন সাফল্যের দিকে। ১৯৩৫ সালে প্রমথেশ বড়ুয়ার ‘দেবদাস’-এর সিনেমাটোগ্রাফার ও সহকারী পরিচালক হিসেবে সুযোগ হয়ে যায়। অবশ্য পরের দশকে ছবিটি তিনি পুনঃনির্মাণ করেছিলেন নিজের পরিচালনায়।

বিমল রায় পরিচালিত সাড়া জাগানো চলচ্চিত্রের ভিতরে উদয়ের পথে, অঞ্জনগড়, মা, দো বিঘা জমীন প্রভৃতি উল্লেখযোগ্য। তার নিজস্ব সংস্থায় তোলা প্রথম ছবি দো বিঘা জমীন (১৯৫৩) কান চলচ্চিত্র উৎসব, কার্লোভিভেরি এবং ভেনিস চলচ্চিত্র উৎসব থেকে পুরস্কার লাভ করেছিল। তার প্রযোজনায় এবং হেমেন গুপ্তের পরিচালনায় কাবুলিওয়ালা ছবিটি জনপ্রিয় হয়েছিল। মস্কোয় ১৯৫৯ খ্রিষ্টাব্দে প্রথম আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের তিনি অন্যতম জুরি ছিলেন। তিনি কিছুকাল ফিল্ম গিল্ড অফ ইন্ডিয়ার সহকারী সভাপতি এবং ভারতীয় চলচ্চিত্র প্রযোজক সমিতির সভাপতি হয়েছিলেন।

১৯৪৪ সালে নিউ থিয়েটার্সের বাংলা ছবি ‘উদয়ের পথে’ মুক্তি পায় বিমল রায়ের পরিচালনায়। শ্রেণী সংগ্রামভিত্তিক বলিষ্ঠ ছবি উদয়ের পথে ভূয়সী প্রশংসা পেয়েছিল ওই সময়ের চলচ্চিত্র সমালোচকদের কাছ থেকে। ১৯৫৮ সালে একসঙ্গে তৈরি করলেন দুটি ছবি- ‘মধুমতী’ ও ‘ইয়েহুদি’। বাণিজ্যিকভাবে দুটি ছবিই সুপারহিট। নিঃসন্দেহে মধুমতী সবচেয়ে জনপ্রিয় ছবি। অনেক বছর পরও মধুমতী একই রকম চর্চিত। এটি ৯টি ফিল্মফেয়ার অ্যাওয়ার্ড পেয়েছিল। তখন ফিল্মফেয়ার অ্যাওয়ার্ড দেয়া হতো ছবির গুণগত মান বিচার করে।

বিমল রায় পরিচালিত চলচ্চিত্রগুলোর মধ্যে রেডিও গার্ল, টিনস ফর ইন্ডিয়া, বেঙ্গল ফেমিন, উদয়ের পথে, হামরাহি, অঞ্জনগড়, মন্ত্রমুগ্ধ, পহেলা আদমি, পরিণীতা, দো বিঘা জমীন, নোকরি, বিরাজ বহু, বাপ বেটি, দেবদাস, মধুমতী, সুজাতা, পরখ, প্রেমপত্র, বন্দিনী, গৌতম দ্য বুদ্ধ ইদ্যাদি।

বিমল রায় বাংলা গল্প ও উপন্যাসের স্বাদ তিনি বহু অবাঙালির কাছে পৌঁছে দিয়েছেন হিন্দি ছবির মাধ্যমে। কিছুদিন ফুসফুসের ক্যানসারে ভোগেন তিনি। এরপর ১৯৬৬ সালের ৮ জানুয়ারি মাত্র ৫৬ বছর বয়সে বিমল রায়ের মৃত্যু হয়।

 

সূত্র: সংগৃহীত

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই শাখার আরো সংবাদ পড়ুন
All rights reserved © RMGBDNEWS24.COM