1. [email protected] : আরএমজি বিডি নিউজ ডেস্ক :
  2. [email protected] : Emon : Armanul Islam
  3. [email protected] : musa :
সোমবার, ২৫ অক্টোবর ২০২১, ০১:৩৬ অপরাহ্ন

মুক্তিযুদ্ধের প্রারাম্ভিক সূচনা ১৯৭১

  • সময় সোমবার, ১৯ জুলাই, ২০২১
  • ১৩১ বার দেখা হয়েছে
জীবনের দর্পণ – ৫
স্মৃতির পাতা থেকে ‌:
সাময়িক প্রেক্ষাপট  ও মুক্তিযুদ্ধের প্রারাম্ভিক সূচনা ১৯৭১।
জহুরুল হক
গত বছর ডিসেম্বর মাসেই বাড়িতে চলে এলাম । কামারগ্রাম থাকা ঠিক হবে না । যদিও ওখানে থেকে এস এস সি পরীক্ষা দেওয়ার আগে চলে আসা যেতো তথাপি বাড়িতে থেকে লেখাপড়া করাটা উত্তম মনে হলো ।
কারন , মাত্র ৩ মাস পর এপ্রিল মাসে এস এস এস পরীক্ষা হবে । ইত্যবসরে দেশে শুরু হয়েছে চরম রাজনৈতিক অস্থিতিশীলতা । এসএসসি পরীক্ষার form fill-up হয়েছে ।
এখন পরীক্ষা অনিশ্চিত যা লোক মুখে ও বন্ধু বান্ধবদের কাছ থেকে শুনতে পাচ্ছি ‌। কিন্তু আমার লেখা পড়া ঠিকমতো চলছে । বাড়িতে ছোট শ্রেণীতে পড়া ভাইবোনদের নিয়ে ঘর গৃহস্থালি কাজে মাকে সাহায্য করছি ।
সংসারে মা বাবা কঠোর জীবন সংগ্রামে লিপ্ত রয়েছেন । মা বাড়ি , ছেলে মেয়ে, ‌কাজের মানুষ নিয়ে সংসারিক কাজে ভীষণ ব্যস্ত । বাবাকে দেখি অন্ধকার থাকতে কোথায় যেনো চলে গিয়েছেন ।
৭/ ৮ টার সময় খবর পাঠিয়েছেন ৮/১০ জন কৃষান ফসল মাঠে নেমেছে ।‌ ওদের সকাল দুপুর দুবেলা খাবার দিতে হবে । সহসা মায়ের কি ব্যস্ততা !
মাকে জিজ্ঞেস করাতে স্বভাব সুলভ ভঙ্গিতে বলে উঠতো আর বলিস্ নে এতো তাড়াতাড়ি কি করে রান্না করি ? সকালের খাবার দিতে অনেক বেলা হয়ে যাবে ? আবার দুপুরের খাবারও দিতে হবে। তবে ঘরে বাজারের কমতি ছিল না ।
প্রতিদিন অনেক অনেক দুধ , মাছ , কলা , বিভিন্ন ধরনের শাক সবজির বাজারে রান্না ঘর ভর্তি থাকতো । বাড়িতে রাবি , ছোট বোন মোমেনা আছে । তাছাড়া আমার এক মামাতো বোন কহি ও থাকতো । তেমন অসুবিধা হতো না ।
দুপুর হলে আব্বার হাটে চলে যাওয়ার প্রস্তুতি । সপ্তাহে ৭ দিনই হাট ।‌ তেলের ব্যবসা । কেরোসিন , সাদা কেরোসিন ‌, নারকেল , সরিষা , বাদাম তেল । বাড়িতে সাবান , সোডা , জিরে , তেজপাতা , লবণ ইত্যাদি । আমাদের দক্ষিণ ঘরটা এসব মালামালে ভর্তি থাকতো । এগুলো মাপার জন্য দাঁড়ানো নিক্তি কাটা ছিল ।
আর দৌলতপুর মোকামে যাওয়া তো থাকছেই । আব্বা রাতে মোকামে যেতেন । তখন চোর ডাকাতের ভীষণ উপদ্রব ছিল । আব্বা রাত ১০ টার পর মোকামে যেয়ে পরের দিন দুপুর নাগাদ ফিরে আসতেন ।
আসবার সময় ভালো পারুটি ও অন্যান্য শুকনো খাবার কিনে আনতেন । আমরা দুধ চিনি দিয়ে এ পারুটি মজা করে ভিজিয়ে খেতাম । লোহাগাড়া , নড়াইল , যশোর হয়ে দৌলতপুর যেতে হতো ।
এ রাতে হিরু ডাকাত আব্বাকে রাতে নগদ টাকা সহ রাস্তা পার করে দিতে সাহায্য করতো । আপনারা কি কখনো শুনেছেন বা দেখেছেন ?  ডাকাত একজন ব্যবসায়ীর জানমাল ও টাকা পয়সা লুট করার পরিবর্তে তাকে রাতের নিরাপত্তা নিশ্চিত করে যাত্রাপথে সাহায্য করতে ? আমার আব্বার ক্ষেত্রে তা ঘটেছিল ।
বলতে গেলে আব্বা ২৪ ঘন্টাই ব্যস্ত , মহাব্যস্ত মানুষ ! কখন ঘুম আর কখন জাগা তা তাঁর জীবনে ঠিক ঠিকানা ছিল না। প্রতিদিন কঠিন সংগ্রাম । আমরা পরিবারের সকলে মা বাবার কঠিন সংগ্রামের সফল । দুজনে ঘরে বাইরে ।
সে তুলনায় আমরা ছেলে ও মেয়েরা শুধু লেখাপড়া আর মাকে ফাঁকে ফাঁকে সহায়তা করা ছাড়া সবক্ষেত্রে বাবু আনা করেছি । কোনোদিন কোনো ভাইবোন মাঠে ঘাটে বনে বাদাড়ে টুকি মেরেও দেখিনি।
বাড়িতে এসে মা বাবার এ নিদারুণ কষ্ট ও সংগ্রাম দেখে নিজেকে আরো উৎসাহিত বোধ করতাম । এজন্য ভাইবোন নিয়ে সারাক্ষণ ব্যস্ত থেকেছি । আমার ছোট ভাই  কওছার লেখাপড়ায় ঢিল‌ দিয়েছে  তাকে নেকি আব্বা জায়গা জমি দেখাশোনা ও আব্বার ব্যবসার সাথে জড়িত রাখবেন ।
এ সুযোগ সে গ্রহণ করছে কিন্তু বাস্তবে তার কোনো লাভ হয়নি । সব ভাইবোন পড়াশোনা করে বাইরে চলে গেলে এ সংসারে আব্বা একা মানুষ কি করে চালাবেন ? তাছাড়া , এমন লাভজনক ব্যবসা তো আর হাতছাড়া করা যায় না ?
ফেব্রুয়ারী মাস থেকে পূর্ব পাকিস্তানের রাজনৈতিক পরিস্থিতি খারাপ হতে লাগল ।
আওয়ামী লীগ নির্বাচনে সংখ্যাগরিষ্ঠ আসন পাওয়া স্বত্বেও আওয়ামী লীগকে সরকার গঠনের জন্য ডাকা হচ্ছে না । জেনারেল ইয়াহিয়া খান পাকিস্তানের পিপলস পার্টির প্রধান জুলফিকার আলী ভুট্টোর সাথে সলা পরামর্শ করছেন । তিনি শেখ মুজিবুর রহমানের সাথে বৈঠক করেছেন না । টালবাহানা করছেন । এমন কি সরকার গঠনেরও আহ্বান জানাচ্ছেন না । ( চলবে )

শেয়ার করুন

এই শাখার আরো সংবাদ পড়ুন
All rights reserved © RMGBDNEWS24.COM