1. admin@hostpio.com : আরএমজি বিডি নিউজ ডেস্ক :
  2. azmulaziz2021@gmail.com : Emon : Armanul Islam
  3. musa@informationcraft.xyz : musa :
মঙ্গলবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৭:৩৬ পূর্বাহ্ন

বুকে বিঁধেছে রড, তবু মোবাইলে সক্রিয়!

  • সময় সোমবার, ১৩ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ৩০ বার দেখা হয়েছে

গাড়ি দুর্ঘটনায় বুকের ভেতর রড ঢুকে গেলেও মোবাইল টিপছেন দুর্ঘটনা-কবলিত এক ব্যক্তি। লোহা কেটে উদ্ধারকর্মীরা তাকে যখন অ্যাম্বুলেন্সে তুলছেন; তখনও তিনি ব্যস্ত মোবাইলের স্ক্রিনে। মোবাইল-আসক্তির এমন ঘটনা সমালোচনারও জন্ম দিয়েছে। ঘটনাটি চীনের।

জানা যায়, সম্প্রতি চীনের লায়োনিং প্রদেশের লিয়াওয়াং শহরে এক ব্যক্তি তার প্রাইভেট কার চালাচ্ছিলেন। তিনি ছিলেন মোবাইলে মগ্ন।

চীনা গণমাধ্যম সাংহাইইস্টের প্রতিবেদন বলছে, ওই ব্যক্তির গাড়ি হঠাৎ নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার নিরাপত্তাবেষ্টনীর (গার্ড রেল) সঙ্গে ধাক্কা খায়। আর এতে গার্ড রেলের একটি চওড়া পাত গাড়ির গ্লাস ভেদ করে তার বুকের বাম পাশ ভেদ করে পেছন দিক দিয়ে বের হয়।

ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা লোহার সেই পাতের বাড়তি অংশ কেটে লোকটিকে উদ্ধার করেন।

সাংহাইইস্টের প্রতিবেদনের বরাত দিয়ে ভারতীয় গণমাধ্যম এনডিটিভি জানায়, বুকে বিঁধে যাওয়া ওই পাতের দৈর্ঘ্য ছিল ১৩ ফুট। ভিডিওতে দেখা যায়, ওই পাতের বেশির ভাগ অংশ গাড়ির গ্লাসের সঙ্গে আটকে থাকে। এর ফলে ওই ব্যক্তি নড়াচড়াও করতে পারছিলেন না। কিন্তু ‘মেবাইল-আসক্ত’ ওই ব্যক্তি কোনো ধরনের চেঁচামেচি না করে মোবাইল ঘাঁটতেই থাকেন।

ভিডিওতে আরও দেখা যায়, বেশ কিছু সময় পর ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ঘটনাস্থলে আসেন এবং লোহা কাটার বৈদ্যুতিক মেশিন দিয়ে পাতের বাড়তি অংশ কেটে আলাদা করেন। এরপর তাকে অ্যাম্বুলেন্সে করে হাসপাতালে নেওয়া হয়।

চীনের ভিডিও স্ট্রিমিং ওয়েবসাইট মিয়াওপাইতে দেখা যায়, ওই ব্যক্তিকে অ্যাম্বুলেন্সে তোলার সময়ও তিনি মোবাইল স্ক্রল করছেন। অথচ তার শরীর থেকে রক্ত ঝরছে। এই ঘটনার ভিডিও চীনের সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে পড়ে।

এনডিটিভির প্রতিবেদনে বলা হচ্ছে, চীনে এ ধরনের মোবাইল-আসক্তি এটাই প্রথম নয়। এর আগে গত বছর এক নারী স্কুটিচালক ৬ ফুট গভীর একটি ম্যানহোলে পড়ে যান। কিন্তু তখনো তিনি বুঁদ হয়ে ছিলেন মোবাইলে।

সূত্র : প্রথম আলো (৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮)

শেয়ার করুন

এই শাখার আরো সংবাদ পড়ুন
All rights reserved © RMGBDNEWS24.COM