1. [email protected] : আরএমজি বিডি নিউজ ডেস্ক :
  2. [email protected] : Emon : Armanul Islam
  3. [email protected] : musa :
বুধবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২১, ০৬:০০ অপরাহ্ন

ভারপ্রাপ্ত উপাচার্য বিজ্ঞানী ড. আশিক মোসাদ্দিকের উল্লেখযোগ্য অর্জন

  • সময় বৃহস্পতিবার, ২৮ অক্টোবর, ২০২১
  • ৬৯ বার দেখা হয়েছে

কোয়ান্টাম পরিবারের সদস্য এবং বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য ও ভারপ্রাপ্ত উপাচার্য বিজ্ঞানী ড. আশিক মোসাদ্দিকের উল্লেখযোগ্য অর্জন

সম্প্রতি বিশ্বসেরা বিজ্ঞানীদের তালিকা প্রকাশ করেছে আন্তর্জাতিক সংস্থা অ্যালপার ডগার (এডি) সায়েন্টিফিক ইনডেক্স। এ তালিকায় রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ফার্মেসি এবং চিকিৎসা ও স্বাস্থ্যবিজ্ঞান বিষয়ের সকল গবেষকদের মধ্যে প্রথম স্থান অর্জন করেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ফার্মেসি বিভাগের অধ্যাপক ও একই বিভাগের প্রাক্তন চেয়ারম্যান এবং বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য ও ভারপ্রাপ্ত উপাচার্য ড. আশিক মোসাদ্দিক।

পাশাপাশি বাংলাদেশে ফার্মেসি বিষয়ে গবেষকদের মধ্যে তিনি দ্বিতীয় এবং চিকিৎসা ও স্বাস্থ্যবিজ্ঞান গবেষকদের মধ্যে অষ্টম স্থান অধিকার করেন।

আবার রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল গবেষকদের মধ্যে নবম এবং বাংলাদেশের সকল গবেষকদের মধ্যে ৫৩ তম স্থান অধিকার করেন অধ্যাপক ড. আশিক মোসাদ্দিক।

তিনি বলেন, এ অর্জন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক শিক্ষার্থীদের মধ্যে গবেষণায় অনুপ্রেরণা জোগাবে এবং বিশ্ববিদ্যালয়কে সমৃদ্ধির পথে এগিয়ে নেবে।

সারা বিশ্বের ১৩ হাজার ৫৩১টি বিশ্ববিদ্যালয়ের সাত লক্ষাধিক বিজ্ঞানীর সাইটেশন এবং অন্যান্য ইনডেক্সের ভিত্তিতে তালিকাটি প্রকাশিত হয় গত ১০ অক্টোবর, রবিবার। এ তালিকা করার ক্ষেত্রে বিশ্বের ৭,০৮,৪৮০, এশিয়ার ১,৫৩,২৬২ এবং বাংলাদেশের ১,৭৯১ বিজ্ঞানীর সংশ্লিষ্ট বিষয়ে গত পাঁচ বছরের সাইটেশন বিবেচনায় নেয়া হয়।

বর্তমানে অধ্যাপক ড. আশিক মোসাদ্দিকের প্রকাশনা সংখ্যা ১৪০টি। ইতোমধ্যে বিভিন্ন আন্তর্জাতিক জার্নালে তার ১৩৫টি সায়েন্টিফিক আর্টিকেল প্রকাশিত হয়েছে। তার তিনটি বইও প্রকাশিত হয়েছে এলসিডার সায়েন্স ও একাডেমিক প্রেস থেকে। সম্প্রতি করোনা প্রতিরোধে প্রাকৃতিক খাবার সম্পর্কিত তার একটি রিভিউ আর্টিকেল সর্বমহলে সমাদৃত হয়েছে। গুগল স্কলারে এখন পর্যন্ত তার সাইটেশনের সংখ্যা ৩,২৬২। তরুণ বিজ্ঞানী (অনুর্ধ্ব ৪০) হিসেবে অবদান রাখার জন্যে ২০১১ সালে থার্ড ওয়ার্ল্ড একাডেমি অব সায়েন্স এবং বাংলাদেশ একাডেমি অব সায়েন্স থেকে গোল্ড মেডেলও অর্জন করেন তিনি।

ড. আশিক মোসাদ্দিক ২০১১-২০১২ সেশনে ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের ফার্মেসি বিভাগের চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। ২০১৭-২০১৯ সালে তিনি সৌদি আরবের দাম্মাম বিশ্ববিদ্যালয়ে গবেষক হিসেবে সাফল্যের সাথে কাজ করেছেন।

উল্লেখ্য, কোয়ান্টাম ফাউন্ডেশনের সৃষ্টির সেবামূলক কাজের সাথে তার সক্রিয় সম্পৃক্ততা প্রায় শুরু থেকেই। তিনি ৮৯ ব্যাচের কোয়ান্টাম গ্রাজুয়েট এবং ৪র্থ ব্যাচের কোয়ান্টাম প্রো-মাস্টার। তার স্ত্রী, কন্যা এবং শ্বশুর-শ্বাশুড়িসহ পরিবারের সকলে কোয়ান্টাম মেথড কোর্স সম্পন্ন করেছেন। অধ্যাপক ড. আশিক মোসাদ্দিক বর্তমানে কোয়ান্টাম ফাউন্ডেশন রাজশাহী সেন্টারের একজন আর্ডেন্টিয়ার। এ-ছাড়া ১৯৯৯ সালে যাত্রা শুরু করা কোয়ান্টাম ফাউন্ডেশন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় সেলের প্রতিষ্ঠাতা আহবায়ক ছিলেন অধ্যাপক ড. আশিক মোসাদ্দিক।

শেয়ার করুন

এই শাখার আরো সংবাদ পড়ুন
All rights reserved © RMGBDNEWS24.COM