1. [email protected] : আরএমজি বিডি নিউজ ডেস্ক :
  2. [email protected] : Emon : Armanul Islam
  3. [email protected] : musa :
বুধবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২১, ০৫:৩৭ অপরাহ্ন

ইতিহাসে অক্টোবর ৩০ সাংবাদিক ও টেলিভিশন ব্যক্তিত্ব ফজলে লোহানী মৃত্যুবরণ করেন

  • সময় শনিবার, ৩০ অক্টোবর, ২০২১
  • ৫২ বার দেখা হয়েছে

বাংলাদেশি সাংবাদিক ও টেলিভিশন ব্যক্তিত্ব ফজলে লোহানী মৃত্যুবরণ করেন।

গ্রেগরীয় বর্ষপঞ্জি অনুসারে আজ বছরের ৩০৩তম (অধিবর্ষে ৩০৪তম) দিন। এক নজরে দেখে নিই ইতিহাসের এই দিনে ঘটে যাওয়া উল্লেখযোগ্য কিছু ঘটনা বিশিষ্টজনের জন্ম ও মৃত্যুদিনসহ আরও কিছু তথ্যাবলি।

ঘটনাবলি

১৯৪৫ : ভারত জাতিসংঘের সদস্য পদ লাভ করে।

জন্ম

১৭৩৫ : জন অ্যাডামস, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের দ্বিতীয় রাষ্ট্রপতি।
১৮৫৩ : প্রমথনাথ মিত্র, ভারতে বিপ্লবী প্রতিষ্ঠান সংগঠনের গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি।
১৮৮৭ : সুকুমার রায়, বাঙালি লেখক, ছড়াকার, শিশুসাহিত্যিক, রম্যরচনাকার, প্রাবন্ধিক ও নাট্যকার।
১৮৯৫ : ডিকিনসন ডব্লিউ রিচার্ডস, নোবেলবিজয়ী আমেরিকান চিকিৎসক ও শারীরবিজ্ঞানী।
১৯০০ : রাগনার গ্রানিট, নোবেলজয়ী ফিনিশ সুইডিশ শারীরবিজ্ঞানী।
১৯০১ : খান মুহাম্মদ মঈনউদ্দীন, বাংলাদেশি কবি ও সাহিত্যিক।
১৯০১ : সুধীন্দ্রনাথ দত্ত, বাংলা ভাষার অন্যতম প্রধান আধুনিক কবি।
১৯০৯ : হোমি জাহাঙ্গীর ভাভা, ভারতের প্রসিদ্ধ নিউক্লিয়ার পদার্থবিজ্ঞানী।
১৯২৬ : রফিকউদ্দিন আহমদ, তদানীন্তন পূর্ব পাকিস্তানের ভাষা আন্দোলনের অন্যতম শহীদ।
১৯২৮ : ড্যানিয়েল নাথন্স, নোবেলজয়ী আমেরিকান মাইক্রো জীববিজ্ঞানী।
১৯৩৯ : লেল্যান্ড এইচ হার্টওয়েল, নোবেলজয়ী আমেরিকান জীববিজ্ঞানী।
১৯৪১ : থিওডর ডব্লিউ. হান্শচ, নোবেল পুরস্কার বিজয়ী জার্মান পদার্থবিদ ও শিক্ষাবিদ।
১৯৪৬ : বদিউল আলম, বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধের মুক্তিযোদ্ধা ও বীর উত্তম।
১৯৬০ : দিয়াগো ম্যারাডোনা, বিশ্বজুড়ে জনপ্রিয় আর্জেন্টিনীয় ফুটবলার।
১৯৬৪ : হুমায়ূন কবীর ঢালী, বাংলাদেশি শিশু সাহিত্যিক।

মৃত্যু

১৯৮৫ : ফজলে লোহানী, বাংলাদেশি সাংবাদিক ও টেলিভিশন ব্যক্তিত্ব।
১৯৮৮ : প্রখ্যাত বাঙালি নাট্যব্যক্তিত্ব তরুণ রায় (ধনঞ্জয় বৈরাগী)।

ফজলে লোহানী

ফজলে লোহানী ছিলেন বাংলাদেশের একজন প্রখ্যাত সাংবাদিক ও টেলিভিশন ব্যক্তিত্ব। বিটিভির ম্যাগাজিন অনুষ্ঠান ‘যদি কিছু মনে না করেন’-এর উপস্থাপক হিসেবে তিনি বিপুল জনপ্রিয়তা লাভ করেন। তার ভাই ফতেহ লোহানী ছিলেন বিশিষ্ট সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব।

জন্মগ্রহণ করেন ১৯২৮ সালে সিরাজগঞ্জ জেলার কাউলিয়া গ্রামে। বাবা আবু লোহানী ছিলেন প্রখ্যাত সাংবাদিক ও সাহিত্যিক। মা ফাতেমা লোহানী ছিলেন কলকাতা করপোরেশন স্কুলের শিক্ষিকা। বড় ভাই ফতেহ লোহানী বিশিষ্ট অভিনেতা, চিত্র পরিচালক, সাহিত্যিক, অনুবাদক ও বেতার ব্যক্তিত্ব।

সিরাজগঞ্জ বিএল স্কুল থেকে ম্যাট্রিক এবং কলকাতা প্রেসিডেন্সি কলেজ থেকে বিএসসি পাস করেন। ১৯৪৮ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে পদার্থবিজ্ঞান বিভাগে এমএসসি ভর্তি হলেও চূড়ান্ত পরীক্ষায় অংশ নেননি।

১৯৪৭ সালে ভারত বিভাগের পর তিনি অন্যান্য কয়েকজনের সঙ্গে সাপ্তাহিক পূর্ববাংলা নামে পত্রিকা প্রকাশ করেন। ১৯৪৯ সালে তার সম্পাদনায় ঢাকা থেকে প্রকাশিত হয় উন্নতমানের সাহিত্য ও সংস্কৃতি বিষয়ক মাসিক ‘অগত্যা’ পত্রিকা। পঞ্চাশের দশকে তিনি ইংল্যান্ড যান এবং বিবিসিতে কাজ করেন।

ষাটের দশকের শেষ দিকে দেশে প্রত্যাবর্তন করে ফজলে লোহানী সাংবাদিকতা ও লেখালেখিতে জড়িত হন। ১৯৭৭-১৯৮৫ সাল পর্যন্ত সময়ে তিনি বাংলাদেশ টেলিভিশনে জনপ্রিয় ম্যাগাজিন অনুষ্ঠান ‘যদি কিছু মনে না করেন’ পরিচালনা ও উপস্থাপনা করেন।

লেখক হিসেবেও তিনি খ্যাতি লাভ করেন। ফজলে লোহানী ‘পেনশন’ নামে একটি চলচ্চিত্র প্রযোজনা করেন।

১৯৮৫ সালের ৩০ অক্টোবর ঢাকায় তিনি মৃত্যুবরণ করেন।

 

সূত্র: সংগৃহীত

শেয়ার করুন

এই শাখার আরো সংবাদ পড়ুন
All rights reserved © RMGBDNEWS24.COM