1. [email protected] : আরএমজি বিডি নিউজ ডেস্ক :
মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ০৭:১৩ পূর্বাহ্ন
সর্বশেষ :
ইফতার বিতরণ করলো আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থার বাংলাদেশ কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্যরা বাংলাদেশ আরএমজি প্রফেশনালস্ এর উদ্যোগে দুঃস্থ ও অসহায় মানুষদের মাঝে ঈদ খাদ্য সামগ্রী বিতরণ- গাজীপুরে এতিম শিশুদের সাথে বিডিআরএমজিপি এফএনএফ ফাউন্ডেশনের ইফতার ও দোয়া মাহফিল গ্রীষ্মকাল আসছে : তীব্র গরমে সুস্থ থাকতে যা করবেন ৭ দশমিক ৪ মাত্রার ভূমিকম্পে কাঁপল তাইওয়ান, সুনামি সতর্কতা ঈদের আগে সব সেক্টরের শ্রমিকদের বেতন-ভাতা পরিশোধের দাবি এবি পার্টির সালমান খান এবার কি বচ্চন পরিবার নিয়ে মুখ খুলতে যাচ্ছেন ঐশ্বরিয়া? আমার ও দেশের ওপর অনেক বালা মুসিবত : ইউনূস লম্বা ঈদের ছুটিতে কতজন ঢাকা ছাড়তে চান, কতজন পারবেন?

দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণকেই প্রাধান্য দিচ্ছে সরকার

  • সময় বুধবার, ৬ মার্চ, ২০২৪
  • ১০১ বার দেখা হয়েছে

এবারের জেলা প্রশাসক (ডিসি) সম্মেলনে শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণকেই প্রাধান্য দিয়েছে সরকার। অর্থ, স্বরাষ্ট্র, খাদ্য, মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী এবং বাণিজ্য, পরিকল্পনা ও অর্থ প্রতিমন্ত্রীসহ বেশির ভাগ মন্ত্রী ও প্রতিমন্ত্রী দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণের বিষয়ে নির্দেশ দিয়েছেন। ডিসি সম্মেলন চলাকালে আসন্ন রমজানে দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণে রাখতে সচিবদের সতর্ক থাকার নির্দেশ দিয়েছে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়। নতুন সরকার গঠনের পর প্রথম মন্ত্রিসভার বৈঠক ও সচিব সভায়ও দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় ও দপ্তরগুলোকে পদক্ষেপ নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।
আওয়ামী লীগের নির্বাচনী ইশতেহারের বিশেষ অগ্রাধিকারের প্রথমটি হলো দ্রব্যমূল্য সবার ক্রয়ক্ষমতার মধ্যে রাখার জন্য সর্বাত্মক প্রচেষ্টা চালিয়ে যাওয়া। জেলা প্রশাসকের ৬২টি দায়িত্ব ও কার্যাবলির মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো জেলার বাজারমূল্য পরিবীক্ষণ ও ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ, খাদ্য, কৃষি, মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ দেখভাল করা। এর আগে দ্রব্যমূল্য দ্রুত নিয়ন্ত্রণের উপায় বের করতে গত ২১ জানুয়ারি অর্থ, কৃষি, খাদ্য এবং মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রীও বৈঠক করেন।
জনপ্রতিনিধিদের সঙ্গে সমন্বয় নিয়ে আলোচনা হয়নি
চার দিনব্যাপী ডিসি সম্মেলনে বিভিন্ন বিষয়ে ডিসিদের করণীয় এবং তাঁদের দায়িত্ব সম্পর্কে আলোচনা করা হয়।
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এই ডিসি সম্মেলনের উদ্বোধনের দিন মাঠ পর্যায়ের কর্মকর্তাদের সুনির্দিষ্ট কিছু দায়িত্ব ও সতর্কবাণী দিয়েছেন। এবারের ডিসি সম্মেলনে জনপ্রতিনিধিদের সঙ্গে সমন্বয়কাজের উল্লেখযোগ্য কোনো কিছু নিয়ে আলোচনা হয়নি।
এ নিয়ে রাজনীতিবিদদের মধ্যে আলোচনা ও সমালোচনা চলছে। কয়েকজন সংসদ সদস্য বলেন, এবারের ডিসি সম্মেলনে সব কিছু ছাপিয়ে যে মূল বিষয়টি সামনে এসে দাঁড়িয়েছে, তা হলো একটি জেলার নিয়ন্ত্রণ কার কাছে থাকবে—একজন ডিসির কাছে, না একজন সংসদ সদস্যের কাছে।
কারণ, দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণে সংসদ সদস্যদের নিয়ে কোনো আলোচনা হয়নি। এ ছাড়া ডিসি সম্মেলনে যেভাবে মাঠ কর্মকর্তাদের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে, তাঁদের যেভাবে বিভিন্ন ইস্যু তদারক করার জন্য ক্ষমতা দেওয়া হচ্ছে, এতে সংসদ সদস্যদের ক্ষমতা খর্ব হবে।
ডিসি সম্মেলনে অর্থমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী বলেছেন, দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণে রাখতে সাধারণ মানুষকে স্বল্প মূল্যে বিভিন্ন পণ্য দেওয়া হচ্ছে। বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রী আহসানুল ইসলাম টিটু বলেছেন, ‘রমজানে নতুন করে কোনো পণ্যের দাম বাড়বে না। ডিসিদের নির্দেশ দিয়েছি, বাড়তি দামে পণ্য বিক্রি হলে ব্যবস্থা নিতে।
মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী আব্দুর রহমান বলেন, রমজানে কঠোরভাবে বাজার নিয়ন্ত্রণ করা হবে। এবার ডিসিরা তাঁদের সব সামর্থ্য নিয়ে বাজার নিয়ন্ত্রণে একমত হয়েছেন।
পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী মো. শহীদুজ্জামান সরকার বলেন, ‘সরকারের রাজনৈতিক ও উন্নয়ন আকাঙ্ক্ষা বাস্তবায়ন করেন মাঠ পর্যায়ের কর্মকর্তারা। সেগুলো বাস্তবায়নে তাঁদের আরো মনোযোগী হওয়ার আহ্বান জানানো হয়েছে। আমরা আশাবাদী, জেলা প্রশাসনের নেতৃত্বে সরকারের ভাবমূর্তি আরো উজ্জ্বল হবে।’
অর্থ প্রতিমন্ত্রী ওয়াসিকা আয়শা খান বলেন, ‘জেলা প্রশাসকদের সম্মেলনে কৃচ্ছ্রসাধনের বিষয়ে বলা হয়েছে। তাঁরা মাঠপর্যায়ে প্রকল্প বাস্তবায়নে জড়িত। এ জন্য আওয়ামী লীগের নির্বাচনী ইশতেহারের অগ্রাধিকার বিষয়ে জেলা প্রশাসকদের দৃষ্টি আকর্ষণ করা হয়েছে। কৃষকদের ভেজাল ও নিম্নমানের বীজ দেওয়া হলে সরবরাহকারীকে কঠোর শাস্তির নির্দেশ দিয়েছেন কৃষিমন্ত্রী ড. মো. আব্দুস শহীদ।’
সরকারের খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির আওতায় আসন্ন রমজান উপলক্ষে আগামী ১০ মার্চের মধ্যে ৫০ লাখ পরিবারের মাঝে দেড় লাখ টন চাল বিতরণ করা হবে বলে জানিয়েছেন খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার। খাদ্যমন্ত্রী বলেন, ‘খাদ্যবান্ধব কর্মসূচি ১ মার্চ থেকেই লিফটিং (ডিলারদের চাল ওঠানো) করতে বলেছি।’
আসন্ন রমজান ও ঈদুল ফিতরে দ্রব্যমূল্য, যানজট, আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি, বিদ্যুৎ ও গ্যাস সরবরাহসহ সামগ্রিক পরিস্থিতি সম্পর্কে সচিবদের সতর্ক থাকার নির্দেশ দিয়েছে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়। গত মঙ্গলবার প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সভাকক্ষে আসন্ন রমজানে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের মজুদ, সরবরাহ, মূল্য পরিস্থিতিসহ সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আয়োজিত বৈঠকে এ নির্দেশ দেওয়া হয়।
সংশ্লিষ্ট একাধিক সচিব কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণের বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে সচিবদের এ নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। সচিবরা যেন ডিসিদের মাধ্যমে দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণে কঠোর পদক্ষেপ নেন, সে বিষয়ে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। সরকারের নির্বাচনী ইশতেহার বাস্তবায়নে সচিব ও ডিসিদের বলেছেন প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়।’
এদিকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণে পরিবহনব্যবস্থায় চাঁদাবাজির বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নিতে বলেছেন।

Thank you for reading this post, don't forget to subscribe!

শেয়ার করুন

এই শাখার আরো সংবাদ পড়ুন
All rights reserved © RMGBDNEWS24.COM
Translate »